//কুরআন এবং আপনি

কুর’আন এবং আপনি (পর্ব ১০)

সূরা বাকারার ১৭২ নাম্বার আয়াতে আল্লাহ বলেন, “হে ঈমানদারগণ, তোমরা পবিত্র বস্তু সামগ্রী আহার কর, যেগুলো আমি তোমাদেরকে রুযী হিসাবে দান করেছি এবং শুকরিয়া আদায় কর আল্লাহর, যদি তোমরা একান্তভাবে শুধু তাঁরই বন্দেগী কর।” এই আয়াতে খাবার সংক্রান্ত তিনটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আছে। এর প্রত্যেকটিই আমাদের তাওহীদের কথা স্মরণ করিয়ে দেয়। প্রথমটা হল, আল্লাহ আমাদের [...]

কুরআন এবং আপনি (পর্ব ৯)

সূরা বাক্বারাহর ১৫৮ নং আয়াতে আল্লাহ বলেছেন: “নিঃসন্দেহে ‘সাফা’ এবং ‘মারওয়া’ (পাহাড় দুটো) আল্লাহর নিদর্শনসমূহের অন্যতম, অতএব যদি তোমাদের মধ্যে কোনো লোক হজ্জ কিংবা ওমরা আদায় করার (এরাদা করে), তাঁর জন্যে এই উভয় (পাহাড়ের) মাঝে তাওয়াফ করাতে দোষের কিছু নেই… ” প্রথমবার দেখেই এই আয়াতের প্রকৃত অর্থ অনুধাবন করা যায় না। কিন্তু এ আয়াত [...]

কুরআন এবং আপনি (পর্ব ৮)

সূরা বাক্বারার ১৫৩ নং আয়াতে আল্লাহ তা’আলা বলেছেন, “হে মুমিন গণ! তোমরা সবর ও সালাতের মাধ্যমে সাহায্য প্রার্থনা কর…” জেলখানার এই ছোট্ট কামরায় এই আয়াতটির অর্থ আমার কাছে খুব পরিষ্কারভাবে ধরা দেয়। এ আয়াতে বর্ণিত সবর ও সালাতের একীভূত করার ব্যাপারটি আমি কারাগারে বসেই উপলব্ধি করতে পেরেছি। এই দুটো ইবাদাতকে একসাথে উল্লেখ করার তাৎপর্য [...]

কুরআন এবং আপনি (পর্ব ৭)

সূরা বাকারাহর ১৫২ নং আয়াতে আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা বলেন: “অতএব তোমরা আমাকে স্মরণ কর, আমিও তোমাদের স্মরণ করব”। এই আয়াতটি নিয়ে উল্লেখ করার মতো বেশ কিছু বিষয় আছে। প্রথমত, আয়াতটি পড়ে এই ভেবে আপনার সম্মানিত বোধ করা উচিত, “দারুণ, আল্লাহ আমাকে স্মরণ করবেন?” মানুষ সাধারণত তাঁর কাজের জন্যে পরিচিত হতে ভালোবাসে। এটা হতে [...]

কুরআন এবং আপনি (পর্ব ৬)

সূরা বাকারাহ এর ৯৩ নং আয়াতে আল্লাহ্ বনী ইসরাইলদের ব্যাপারে বলেছেন, “আর যখন আমি তোমাদের কাছ থেকে প্রতিশ্রুতি নিলাম এবং তূর পর্বতকে তোমাদের উপর তুলে ধরলাম যে, শক্ত করে ধর আমি যা তোমাদের দিয়েছি আর শোন। তারা বলল, আমরা শুনেছি আর অমান্য করেছি। কুফরের কারনে তাদের অন্তরে বাছুরপ্রীতি পান করানো হয়েছিলো। বলে দিন, তোমরা [...]

কুরআন এবং আপনি (পর্ব ৫)

আল্লাহ্‌ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা কুরআনে সূরা বাকারায় বলেন, “অতঃপর তোমরাই পরস্পর খুনাখুনি করছ এবং তোমাদেরই একদলকে তাদের দেশ থেকে বহিস্কার করছ। তাদের বিরুদ্ধে পাপ ও অন্যায়ের মাধ্যমে আক্রমণ করছ। আর যদি তারাই কারও বন্দী হয়ে তোমাদের কাছে আসে, তবে বিনিময় নিয়ে তাদের মুক্ত করছ। অথচ তাদের বহিস্কার করাও তোমাদের জন্য অবৈধ। তবে কি তোমরা [...]

কুরআন এবং আপনি (পর্ব ৪)

সূরা বাকারা আয়াত ৭৯ এ আল্লাহ্‌ বলেন, “অতএব তাদের জন্য আফসোস! যারা নিজ হাতে কিতাব লেখে এবং বলে এটি আল্লাহ্‌র পক্ষ থেকে অবতীর্ণ–যাতে তারা এর বিনিময়ে সামান্য অর্থ গ্রহণ করতে পারে। অতএব তাদের প্রতি আক্ষেপ, তাদের হাতের লেখার জন্য এবং তাদের প্রতি আক্ষেপ, তাদের উপার্জনের জন্য।” পৃথিবীর অনেক ধর্মের ঐশী বাণীই মানুষ কাঁটাছেড়া করে [...]

কুরআন এবং আপনি (পর্ব ৩)

সূরা বাকারা আয়াত ৬১, আল্লাহ্‌ বনী ইসরাইলদের উদ্দেশ্য করে বলেন, “(স্মরণ করো) যখন তোমরা বললে, হে মূসা! (প্রতিদিন) একই ধরনের খাবারের ওপর আমরা কিছুতেই (আর) ধৈর্যধারণ করতে পারি না, তুমি আমাদের পক্ষ থেকে তোমার রবের নিকট প্রার্থনা কর, তিনি যেন আমাদের জন্য এমন খাদ্যদ্রব্যের ব্যবস্থা করেন যা জমিন থেকে উৎপন্ন হয়, যেমন তরিতরকারি, পেয়াজ, [...]

কুরআন এবং আপনি (পর্ব ২)

সূরা বাকারা আয়াত ২১-২২ এ আল্লাহ বলেনঃ “হে মানুষ, তোমরা মহান আল্লাহ’র দাসত্ব স্বীকার করো, যিনি তোমাদের এবংতোমাদের আগে যারা ছিলো তাদের সৃষ্টি করেছেন, যাতে তোমরা ধর্মভীরু হও। যিনিতোমাদের জন্য যমীনকে শয্যা আর আসমানকে ছাদ স্বরূপ সৃষ্টি করেছেন…।” আপনি এই আয়াতগুলো থেকে যে ব্যাপারটা বুঝতে পারবেন তা হল, যদি আপনার ঈমান দুর্বল হয়ে পড়ে [...]

কুরআন এবং আপনি (পর্ব ১)

সূরা বাকারার শুরুতে আপনি দেখতে পাবেন আল্লাহ মুত্তাকীনদের সর্বপ্রথম যে বৈশিষ্ট্যের কথা উল্লেখ করেছেন তা হল তারা ‘আল গায়েব ‘ অর্থাৎ অদৃশ্য জগতে বিশ্বাস করে। সর্বজনবিদিত ধারণাগুলো ছাড়াও আপনার জীবনে এই বিষয়টির আরও কিছু কার্যকরী তাৎপর্য রয়েছে। প্রথমত, হে মুওয়াহহিদ [১] – আপনি যা বিশ্বাস করেন, তা এই জন্যে বিশ্বাস করেন না যে তা [...]